Nirbhiknewsসাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কৈখালিতে আওয়ামী লীগের এক নেতাকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার (১৯ নভেম্বর) গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। সোমবার (২০ নভেম্বর) সকালে উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নের কৈখালি গ্রামের পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) বেড়িবাঁধের পাশ থেকে ওই আওয়ামী লীগ নেতার মস্তকবিচ্ছিন্ন লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের নাম সুলাইমান গাজী(৪৫)। তিনি সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার ঝায়ামারি গ্রামের মৃত মোকছেদ গাজীর ছেলে এবং কালিগঞ্জের নলতা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

জানা যায়, রোববার রাত আটটার দিকে কয়েকজন শোভনালী বাজারে সাহেব আলীর দোকানে ক্যারামবোর্ড খেলছিলেন। এ সময় একটি মোবাইল থেকে কল আসায় তড়িঘড়ি করে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন। পরে সোমবার ভোরে কৈখালি গ্রাম থেকে তার মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।

আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিদুল ইসলাম শাহিন জানান, সকালে বেড়িবাঁধের ওপরে সুলাইমান গাজীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সুলাইমান গাজীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে।

তিনি আরো জানান, সুলাইমান গাজীকে কে বা কারা অথবা কি কারণে হত্যা করেছে তা জানা সম্ভব হয়নি। তবে সুরতহাল রিপোর্ট অনুযায়ী তাকে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার গলা, হাত ও পায়ে জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে।