Nirbhiknewsরোহিঙ্গা সংকটের প্রতি ইঙ্গিত করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। এ সময় চলমান শরণার্থী সঙ্কট মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেন রোমান ক্যাথলিকদের প্রধান ধর্মগুরু।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে পোপ এই আহ্বান জানান। পোপ বলেছেন, ‘রাখাইন থেকে আসা বিপুল সংখ্যক শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। ওইসব শরণার্থীদের মৌলিক প্রয়োজনও পূরণ করার চেষ্টা করা হয়েছে। যার মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ মানবিক এবং ঐক্যের পরিচয় দিয়েছে।’

তবে এ সময় তিনি ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকেন। সঙ্কট সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এগিয়ে আসাটা জরুরি উল্লেখ করেন পোপ বলেছেন, ‘এই ঘটনা কোনও সামান্য ব্যাপার নয়। পুরো পৃথিবীর সামনেই এটি ঘটে চলছে। শরণার্থী শিবিরগুলোতে যারা রয়েছে তারা আমাদেরই আত্মীয়। সেখানে মানুষের অবর্ণনীয় কষ্ট, বেশিরভাগই নারী ও শিশু ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। তাদের গুরুত্ব বুঝতে আমরা ব্যর্থ হইনি। তাদের জন্য দ্রুত মানবিক সহায়তা দরকার।’

তিনি আরো বলেছেন, ‘গুরুতর এই সংকট মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে নিরপেক্ষ অবস্থান নিতে হবে। পাশাপাশি তাদের সিদ্ধান্তমূলক পদক্ষেপ নেওয়াও অত্যন্ত জরুরি।’

এ সময় রাখাইনের সংকটের সমাধান ও শরণার্থীদের ত্রাণ সহযোগিতার পাশাপাশি রাজনৈতিক সহায়তা দিতেও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান পোপ।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় মিয়ানমার থেকে ঢাকায় পৌঁছেন পোপ। তিনি সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শনের পর বঙ্গভবনে যান।