Nirbhiknewsলক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নার্সদের অবহেলায় প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বিক্ষুব্ধ স্বজনরা হাসপাতাল ঘেরাও করে বিচারের দাবি জানালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বুধবার (২২ নভেম্বর) ভোরে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোজিনা নামে ওই প্রসূতি ও তার নবজাতকের মৃত্যু হয়। ঘটনার পর থেকে নার্স রেহানা আক্তার ও নাসিমা পলাতক রয়েছেন। নবজাতকসহ নিহত রোজিনা উপজেলার খাসেরহাট এলাকার এমরান হোসেনের স্ত্রী।

নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, মঙ্গলবার রাতে প্রসব ব্যথা অনুভূত হলে রোজিনাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তখন নার্স রেহানা ও নাসিমা রোগীকে দেখে ইনজেকশন পুশ করে ট্যাবলেট খাওয়ান। এরপর প্রসব বেদনা বেড়ে রোগী অসুস্থ হয়ে পড়লে নার্সদের ডেকে জানানো হয় এবং চিকিৎসককে ডেকে অস্ত্রোপচার করার অনুরোধ করা হয়। কিন্তু তারা স্বাভাবিকভাবেই সন্তান প্রসব হবে জানিয়ে কালক্ষেপণ করে। একপর্যায়ে (বুধবার ভোরে) রোজিনা ছেলে সন্তান প্রসব করলে নবজাতকটি মারা যায়। এর কিছুক্ষণ পর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে রোজিনারও মৃত্যু হয়।

রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. বাহারুল আলম জানান, রোগীর স্বজনদের অভিযোগ পেয়েছি। এ ঘটনায় কারো দায়িত্বে অবহেলা থাকলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/তদন্ত) মো. সোলায়মান জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এ ঘটনায় থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।