Road+accidentআরিফুল ইসলাম মহিন,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় ইয়াবা ব্যবসাকে কেন্দ্র করে বিরোধের জেরে ট্রাক চালক দেলোয়ার হোসেনকে খুন করা হয়েছে। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত মাটিরাঙা উপজেলা শ্রমিকলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিনসহ দুই আসামী পুলিশকে এ তথ্য দিয়েছে। গেল ১২ মে ট্রাক চালক দেলোয়ার হোসেনকে খুন করে ট্রাকের কেবিনে লাশ রেখে যায় ঘাতকরা।

মঙ্গলবার (১৫ মে) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে ব্রিফিংকালে পুলিশ সুপার আলী আহমেদ খান সাংবাদিকদের জানান, ইয়াবা ব্যবসাকে কেন্দ্র করে ট্রাক চালক দেলোয়ার হোসেনকে খুন করা হয়। এ ঘটনায় প্রথমে ট্রাক হেল্পার মো. শাহীনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তিতে মাটিরাঙা উপজেলা শ্রমিক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও মাদক ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়। মনোরঞ্জন ত্রিপুরা নামে অপর আরেকজন পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সুপার বলেন, গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। মূলত ইয়াবা ব্যবসার বিরোধ থেকে দেলোয়ার হোসেনকে খুন করা হয়।

জানা গেছে, জসিম ও মনোরঞ্জন ট্রাক চালক দেলোয়ারকে ৫০ হাজার টাকা দেয় কক্সবাজার থেকে ইয়াবা এনে দেয়ার জন্য। কিন্তু দীর্ঘদিনে সে ইয়াবার চালান বা টাকা না দেয়ায় ১২ মে রাতে তাদের মাঝে বাকবিতণ্ডা হয়। বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে ট্রাকের মধ্যে তাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। হত্যাকাণ্ড ভিন্ন দিকে প্রভাবিত করতে ট্রাকের কেবিনে লাশ রেখে বাহির থেকে আটকে দেয়া হয়।

পুলিশ সুপার আলী আহমেদ খান আরো জানান, খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশ মাদক বিস্তার রোধে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে। শুধুমাত্র গত এপ্রিল মাসে খাগড়াছড়িতে ২৮টি মাদক মামলা হয়েছে। ৫০ জন আসামীর মধ্যে ৪৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সাংবাদিকদের ব্রিফ্রিংকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাহউদ্দিন ও মাটিরাঙা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।