Nirbhiknewsরাজধানীর কাকরাইলে তাবলীগ জামাতের মারকাজ মাসজিদে বিভক্ত দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি শান্ত করতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটেছে বলে।

রমনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মঈনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে বলেন, তাবলীগ জামাতের বাংলাদেশের প্রধান কেন্দ্র কাকরাইল মসজিদ। এখানে তাদের একটি শুরা মিটিং ছিলো। মিটিংয়ে মতাদর্শগত বিরোধের সূত্র ধরে দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতি ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

তিনি আরও বলেন, তাবলীগের ঊর্ধ্বতন মুরব্বিদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করা হচ্ছে। বড়ধরনের কোন ঘটনা না ঘটে সেজন্যে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে ।
একটি সূত্রে জানা গেছে, মাওলানা জুবায়ের এবং সুরা সদস্য ওয়াসিফুল ইসলাম গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সূত্রটি জানায়, কিছু দিন আগে মাওলানা জুবায়ের নামে তাবলীগ জামাতের এক সদস্য পাকিস্তানে একটি জামাতে অংশ নেন। সেখানে তাবলীগের আরেক মুরব্বী আহমেদ লাকশাহর সঙ্গে দেখা করেন। আহমেদ লাকশাহ বাংলাদেশের তাবলীগ জামাতের জন্য জুবায়েরের কাছে একটি বার্তা দিয়েছিলেন। কিন্তু মাওলানা জুবায়ের সে বার্তা বাংলাদেশি মুরব্বিদের জানান নি। পরে সুরা সদস্যরা অন্য মাধ্যমে সে বার্তাটি অবগত হন।
আজ সকালে সুরা সদস্যদের একটি বৈঠকে এ নিয়ে বাকবিতণ্ডার পরে দুইপক্ষের সংঘর্ষ শুরু হয়।