Nirbhiknewsজুনের শুরুতে আফগানিস্তান সিরিজ। যেখানে তিন বা চারটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। একই মাসের শেষ সপ্তাহে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। পূর্ণাঙ্গ এই সফরে তিন ফরম্যাটেই ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে খেলবে টাইগাররা। কার্যত আফগানিস্তান সিরিজের আগেই কোচ নিয়োগ করতে চেষ্টা করছে বিসিবি। শেষ পর্যন্ত তা না হলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগে কোচ পাওয়ার আশা করছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন।

শুধু হেড কোচ নয়, জাতীয় দলের জন্য ফিল্ডিং কোচ নিয়োগের চেষ্টাও করা হচ্ছে। এছাড়া দুটি সিরিজের জন্য বাংলাদেশের প্রাথমিক দল ঘোষণা করা হবে আগামী ৫ মে।

গতকাল মিরপুর স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী। এবং ভারতের সঙ্গে ভবিষ্যতে সিরিজ বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সম্প্রতি বলেছিলেন, হেড কোচ নিয়োগের কাছাকাছি রয়েছে বিসিবি। চুক্তি হয়ে গেলেই নাম প্রকাশ করা হবে।

গতকাল মাশরাফি-সাকিবদের হেড কোচ নিয়োগের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেছেন, ‘জুনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের আগে চেষ্টা চলছে চূড়ান্ত করতে। আমরা চেষ্টা করছি। জানেন যে ফিল্ডিং কোচ যেহেতু নেই। রিচার্ড হ্যালসল চলে গেছেন। এখানে নতুন কাউকে দেওয়ার চেষ্টা চলছে।’

কোচ নিয়ে আফগানিস্তান সিরিজ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরকে এক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখছে বিসিবি। তাই চেষ্টা করা হচ্ছে আফগানিস্তান সিরিজের আগেই কোচ পাওয়ার। আর আফগানদের বিপক্ষে সিরিজের আগে হেড কোচ না পেলে কে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্বে থাকবেন তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের ম্যানেজার সাব্বির খান এখন ভারতে রয়েছেন। বাংলাদেশ-আফগানিস্তান সিরিজের সম্ভাব্য ভেন্যু দেরাদুন ঘুরে এসে রিপোর্ট করবেন তিনি। তার রিপোর্টের উপর ভিত্তি করেই সিরিজের সূচি চূড়ান্ত করবে বিসিবি।

আফগানিস্তান সিরিজ নিয়ে নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেছেন, ‘আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত হবে। বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ডের প্রতিনিধি হিসেবে ক্রিকেট অপারেশন্স ম্যানেজার দেরাদুনে গেছেন। সেখানে মাঠ ও অন্যান্য সুবিধা দেখতে গেছেন। সরেজমিনে দেখে এসে দুই-তিনদিনের মধ্যে বোর্ডকে জানাবেন। তারপর আমরা সিরিজটার সফর সূচি চূড়ান্ত করব।’

গত সপ্তাহে কলকাতায় হওয়া আইসিসির মিটিংয়ের পর এফটিপিতে ভারতের সঙ্গে সিরিজ বাড়তে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী। তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করছি অতীতে ভারতের সঙ্গে যে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ হয়েছে, এটা সামনে আরো বেশি হবে।’

আভ্যন্তরীণ ভুলের কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের সরকারি জিও তালিকায় নাম ছিল না মাশরাফি বিন মুর্তজার। মূলত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দুটি টি- টোয়েন্টি ম্যাচ হতে পারে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। তাই আগে টি- টোয়েন্টি দলের সম্ভাব্য ক্রিকেটারদের যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে বিসিবি। স্বাভাবিকভাবেই সেখানে নাম নেই এ ফরম্যাট থেকে অবসর নেওয়া মাশরাফির। তবে কাগজের শিরোনামে ভুলবশত টেস্ট, ওয়ানডে, টি- টোয়েন্টি দল লেখা ছিল।

নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘বিষয়টা আসলে ভুল বোঝাবুঝি। প্রথম যে চিঠিটা গেছে এটা মূলত টি-টোয়েন্টি দলের। যেহেতু ফ্লোরিডায় ম্যাচ হবে দুটি। যুক্তরাষ্ট্রের ভিসার প্রক্রিয়া যেহেতু জটিল, আমাদের ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ টি-টোয়েন্টির প্রাথমিক দলের খেলোয়াড়দের নাম পাঠিয়েছে।’