Mushfique-injury-BCB-mirpur-Afganistan_vs_Bangladeshআসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ পূর্নাঙ্গ ও আফগানিস্তান টি২০ সিরিজের জন্য ৩১ জনের নাম ঘোষনা করেছে বিসিবি। এর মধ্যে মোস্তাফিজ ও সাকিব আল হাসান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে থাকায় আজ থেকে শুরু হওয়া জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দিতে পারছেন না। আইপিএল শেষ করে দুজনেই দেশে ফিরে অনুশীলনে যোগ দিবেন। তাছাড়া দুজনেই চলমান টি২০ লীগে থাকায় বাংলাদেশের জন্য আফগানদের বিরুদ্ধে সিরিজটা ভালই হবে। অন্যান্যরা জাতীয় ক্যাম্পে অনুশীলন করবে যথারীতি।

সাকিব ছাড়া বাকি চার সিনিয়র খেলোয়াড়ই ইনজুরিতে পড়েছিলেন। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর বিশ্বাস, শতভাগ ফিট ও শক্তিশালী দল নিয়ে আফগানদের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে ভারতে যেতে পারবে বাংলাদেশ দল। তিনি বলেন, ‘ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়নের সঙ্গে এক সপ্তাহের কন্ডিশনিং ক্যাম্প হবে। সেখানে ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে কাজ হবে। আমাদের জন্য স্বস্তির বিষয় দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা এখন ইনজুরি থেকে সেরে উঠেছেন। এ ফিটনেস ক্যাম্পে তাদের বাকি সমস্যাও দূর হয়ে যাবে। তামিম, মুশফিক, মাহমুদুল্লাহরা সবাই এখন খেলার জন্য প্রস্তুত আছে। ক্যাম্পে ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে আমি বেশ আশাবাদী।’

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন বলেন, ‘দুজনই আইপিএলে খেলে দেশে ফিরবে। ভারতের মাটিতে খেলছে তারা এটি আমাদের জন্য ভালো। আর আফগানদের বিপক্ষেতো টি-টোয়েন্টি সিরিজ আর ওরা দুজনই টি-টোয়েন্টির মধ্যেই আছে। আশা করি সাকিব ও মোস্তাফিজকেও আমরা ফিট পাবো।’ এরই মধ্যে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের সূচি প্রকাশ করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)।

ভারতের দেরাদুনের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে আগামী ৩রা জুন হবে সিরিজের প্রথম ম্যাচ। সিরিজের পরের দুই টি-টোয়েন্টি আগামী ৫ ও ৭ই জুন। প্রতিটি ম্যাচই দিবা-রাত্রির। বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হবে খেলা। আগামী ২৯শে মে ভারতের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ দল। দেরাদুনে ৩০ ও ৩১শে মে অনুশীলন করবে টাইগাররা। ১লা জুন একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সফরকারী বাংলাদেশ দল।

সিরিজ শেষে টাইগাররা আগামী ৮ই জুন দেশে ফিরবে। এর আগে প্রধান নির্বাচক জানিয়েছিলেন জুনেই দল ঘোষণার কথা। তবে ম্যাচের সময় এগিয়ে আসাতে এ মাসের শেষ সপ্তাহেই দল ঘোষণার কথা জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমরা জুনের আগেই যাচ্ছি তাই একটু আগেই দল ঘোষণা করে দিব। বাকি যারা থাকবে তারা প্রস্তুতি নিবে ওয়েস্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজে পূর্ণাঙ্গ সফরের জন্য।’

ক্যাম্পে থাকা পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি বলেন, ‘আমরা ব্যাক্তিগতভাবে আগে থেকেই কাজ করছি। কারণ বসে থাকলেতো আমাদেরই ক্ষতি। ক্যাম্প শুরু হচ্ছে। ফিটনেসটা আশা করি আরো ভালো হবে।’

দলের সব ক্রিকেটাররাই নিজেদেরকে ফিট রাখার জন্য সর্বদায় চেষ্টা করে থাকেন এবং দলের জন্য নিজের সর্বোচ্চটা দেওয়ার জন্য ব্যাকুল থাকেন। দৃঢ় মনোবল চেষ্টায় বাংলাদেশ আসন্ন সিরিজে সাফল্য বয়ে আনবে এটাই প্রত্যাশা সকলের।